in ,

Fake News: মা-মেয়েকে নির্যাতনকারী সেই চেয়ারম্যান গ্রেফতার

চকরিয়ায় দুই নারীকে দড়ি বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় হারবাং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিরানুল গ্রেফতার

এই খবরটি সম্পূর্ণ গুজব

“কক্সবাজারের চকরিয়ায় গরু চুরির অপবাদে দুই নারীকে দড়ি বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্ত হারবাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১” এমন শিরোনামে একটি সংবাদ গতকাল সকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও জাতীয় দৈনিক জনকণ্ঠের অনলাইন পোর্টালসহ কয়েকটি ভুঁইফোঁড় অনলাইন পোর্টালে ভাইরাল হয়েছে। তথ্যটির সাথে অভিযুক্ত চেয়ারম্যান র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন এমন একটি ইডিট করা ছবিও সংযোজিত করা হয়েছে।

মূল ঘটনা, ৪ অক্টোবর ২০১৮ ইং তারিখে

র‌্যাব-১১ তে কর্মরত এএসপি পরিচয় দিয়ে একে একে নয়টি বিয়ে করার অভিযোগে প্রতারক শাহীন আলম তারেক ওরফে সজীবকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার শিমরাইল থেকে আটক করে র‌্যাব।

আসল ছবি

শাহীন আলমের গ্রেফতারের ছবি ইডিট করে প্রতারক শাহীনের স্থানে চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামের ছবিটি বসিয়েই চেয়ারম্যান মিরানুলের গ্রেফতারের গুজবটি ছড়ানো হচ্ছে।

ইডিটেড ছবি

 

অর্থাৎ চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামের গ্রেফতার হওয়ার তথ্যটি সম্পূর্ণ গুজব ও ভিত্তিহীন।

[su_box title=”Summary” box_color=”#f30404″ radius=”0″]

  • Claim Review:  চকরিয়ায় দুই নারীকে দড়ি বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় হারবাং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিরানুল গ্রেফতার
  • Claimed By: Web Portal,Facebook Post
  • Fact Check: False

[/su_box]

Thomas Rahman

Written by Thomas Rahman